কথায় কথায় যারা কসম কাটে তারাই বেশি সৎ?

0
33
Portrait of gesticulating girl talking with psychologist

যারা কথায় কথায় কসম কাটে তারাই বেশি সৎ। সম্প্রতি এক মনস্তাত্ত্বিক গবেষণার ওপর ভিত্তি করে এমন তথ্য জানানো হয়েছে।

সব কথাতেই যারা কসম কাটেন তারা মিথ্যা না বলা এবং লোকজনকে কষ্ট না দেওয়ার মত সামাজিক নিয়ম-রীতিগুলো সম্পর্কে অন্যদের চেয়ে খুব বেশি সচেতন থাকেন।

কসম কাটা আমাদের অনুভূতিরই একটা বহিঃপ্রকাশ। যারা সব সময় এমনটা করেন তারা অন্যদের চোখে অনেক বেশি আন্তরিক হয়ে ওঠেন।

স্যোসাল সাইকলিজিকাল অ্যান্ড পারসোনালিটি সাইন্সের গবেষণায় নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথা উল্লেখ করে বলা হয়েছে, ট্রাম্প কথায় কথায় কসম কাটেন। আর এক শ্রেণির মানুষ কিন্তু তাকেই ভোট দিয়ে প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত করেছেন।

কসম কাটার কারণে দোষী মানুষকেও অনেক সময় নিরপরাধ মনে হয়। ইউনিভার্সিটি অব ক্যামব্রিজের ডেভিড স্টিলওয়েল বলেছেন, এই বিষয়টাকে দু’ভাবে দেখা যায়। একদিকে, যখন কেউ সারাক্ষণ কসম কাটে তখন সেটা তার খারাপ আচরণ বলে মনে হতে পারে। এতে করে যে ব্যক্তি কসম কাটছেন তাকে খারাপ মানুষ বলেই মনে হতে পারে।

অপরদিকে, একজন মানুষ যা ভাবছে সে তাই বলছে। যখন যা ঘটছে তারা সেটা অস্বীকার করছেন না। আর সেটা বোঝানোর জন্যই সে বার বার কসম কাটছেন।

দু’টি পেক্ষাপট থেকে তাই এটা পরিস্কার যে, মনে যা আসছে তাই বলে দিচ্ছেন এমন ব্যক্তি সত্য নিয়ে খেলা করেন না। সে যা ভাবে তাই বলে। আর এ কারণে নিজেকে অন্যের কাছে সহজভাবে উপস্থাপন করতেই কসম কাটেন অনেকেই।

Please follow and like us:
20

Comments

comments