ফিশিং : ধরি মাছ না ছুঁই পানি

0
6

ফিশিং শব্দের আভিধানিক অর্থ প্রতারণার মাধ্যমে তথ্য চুরি। ইন্টারনেটের পরিভাষায় দেখতে জনপ্রিয় কোনো ওয়েবসাইটের মতো নকল পাতা সাজিয়ে কৌশলে কাউকে সেখানে লগইন করতে উৎসাহিত করে আইডি হ্যাক করা তথা ইউজার নেম, পাসওয়ার্ডসহ ব্যক্তিগত তথ্য বা নথি সংগ্রহ করা।

মূলত ভিকটিমের ব্যাংকিং তথ্য হাতিয়ে নেওয়া লক্ষ্য হলেও ফিশিং করা হয় সোশ্যাল মিডিয়া আইডি হ্যাক করার উদ্দেশ্যেও!

ফিশিং কী:

ইমেইল বা অন্য কোনো যোগাযোগমাধ্যমে কোনো গুরুত্বপূর্ণ খবর, সতর্কবার্তা বা অবাক করার মতো কোনো সংবাদ, অফার বা বিজ্ঞাপনের সঙ্গে লিংকে ক্লিক করতে বলে জনপ্রিয় কোনো ওয়েবসাইটের লগইন পাতার মতো হুবহু পাতা সাজিয়ে তাতে কাঙ্ক্ষিত ব্যক্তির ইউজার নেম, পাসওয়ার্ড বা ক্রেডিট কার্ডের তথ্য প্রবেশ করাতে বলাই ফিশিং।

মাছ ধরার ক্ষেত্রে যেমন ‘টোপ’ দিয়ে শিকার করা হয়, তেমনি এখানেও বিভিন্ন রকম লোভ দেখিয়ে ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেওয়া হয় বলেই ইন্টারনেটে প্রতারণার এই কৌশলটির এমন নাম দেওয়া হয়েছে।

কীভাবে চিনবেন ফিশিং লিংক:

অবস্থাদৃষ্টে ভয়ঙ্কর মনে হলেও সামান্য একটু সচেতন থাকলেই এড়ানো যায় ফিশিংয়ের ঝুঁকি। অনলাইনে পাওয়া কোনো লিংক ক্লিক করার আগে মনে রাখতে চেষ্টা করবেন নিচের বিষয়গুলো :

ভালো করে দেখুন তো পাঠানো বার্তায় সংশ্লিষ্ট কোম্পানির ঠিকানা/ফোন নম্বর দেয়া আছে কি না – থাকলে যাচাই করে দেখুন, না থাকলে কোনো লিংকে ক্লিক করার দরকার নেই।

ভালো করে লক্ষ করুন লিংকে দেওয়া অ্যাড্রেসটি। সাধারণত এসব ক্ষেত্রে আসল সাইটের নামের সঙ্গে মিল রেখে অ্যাড্রেস দেওয়া হলেও সেটি কখনোই আসল নাম নয়, যেমন facebok.com,faceboook.comবা faecbook.com!

অপরিচিত কোনো ইমেইল ঠিকানা থেকে যে নামেই মেইল আসুক না কেন, যাচাই করে নিন তারা আসলে কারা (ইমেইল খোলার আগে ‘From’ সারিতে প্রেরকের নামের ওপর মাউসটি নিন, ক্লিক বা কিছুই করার দরকার নেই, দেখুন নাম এবং ইমেইলে আসলেই মিল আছে কি না?)

চেক করে দেখুন তো ওয়েব অ্যাড্রেস https://দিয়ে শুরু কি না? সব সাইট না হোক, নামিদামি বেশির ভাগ কোম্পানিরই ওয়েব ঠিকানা এখন নিরাপত্তার খাতিরে উল্লেখিত ফরম্যাট, অর্থাৎ এনক্রিপ্টেড হয়। এখানে আপনি যা তথ্য প্রবেশ করাচ্ছেন তা আপনি ছাড়া আর কেউই জানতে পারবে না।

মনে রাখবেন, কোনো ব্যাংক বা প্রতিষ্ঠিত সোশ্যাল মিডিয়া অহেতুক ইমেইল বা যেখানে-সেখানে আপনার কার্ড নম্বর বা পাসওয়ার্ড জানতে চাইবে না।

.exe কিংবা .bat ধরনের কোনো ফাইল এটাচড থাকলে বা ডাউনলোড হতে চাইলে সাবধান।

তাড়াহুড়া নয় কোনো অবস্থাতেই! অফার যাই হোক না কেন, যদি বলে তা পেতে ‘এখনই লগইন করুন’ কিংবা ‘সময় খুব সীমিত’ তবে বাদ দিন।

ফিশিং থেকে নিরাপদ থাকতে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির রিভ অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করুন। এর অ্যান্টি ফিশিং প্রযুক্তি সব ধরনের নকল লিংক শনাক্তের পাশাপাশি ব্যবহারকারীকে কোনো অবাঞ্ছিত ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে দেয় না। ফলে আপনার ডিভাইস ও প্রয়োজনীয় তথ্য থাকে সম্পূর্ণ নিরাপদ।

Please follow and like us:
20

Comments

comments