সুখী থাকার মূলমন্ত্র জানতে চান? এই লেখাটি পড়ুন

1
5
সুখী থাকার মূলমন্ত্র

সুখী থাকার মূলমন্ত্র

সুস্বাস্থ্য এবং সুখী মনের অধিকারীকে না হতে চায়? পৃথীবির প্রতিটি মানুষই চায় সব সময় সুস্থ এবং সুখী জীবন যাপন করতে। সুখী ও সুস্থ জীবনের জন্য মানুষ কি না করে। চেষ্টা করেও কেউ সুখী হতে পারে আবার কেউ পারে না। কিন্তু একবার চিন্তা করুন এই অসাধ্য জিনিস যদি সাধন হয়ে যায় অল্প কিছু কাজের মাধ্যমে তাহলে কেমন হবে ভাবুন? তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক বিষয়গুলো:

১) যে কোনো কঠিন মুহূর্তেও হাসুন। কষ্টকর জীবন হোক বা অপূর্ণতা হোক না কেন হাসার অভ্যাস রাখুন। এতে মন ও স্বাস্থ্য দুটোই ভালো থাকবে। হাসি হৃদপিণ্ডের জন্য অত্যন্ত ভালো এবং একই সাথে বিষণ্ণতা কাটানোর জন্যও একেবারে পারফেক্ট ঔষধ।

২) যোগব্যায়ামের ক্ষমতা সম্পর্কে অনেকেই জানেন না। সকালে মাত্র ১০-১৫ মিনিটের যোগব্যায়াম সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করে এবং সেই সাথে মানসিক প্রশান্তি বয়ে আনে। তাই সুস্বাস্থ্য ও সুখী জীবন পেতে অবশ্যই যোগব্যায়ামের অভ্যাস করুন।

৩) কখনোই এবং কোনো পরিস্থিতিতেই নিজেকে অন্য আরেকজন মানুষের সাথে তুলনা করতে যাবেন না। আপনি যখন তুলনা করবেন তখন নিজেকে অনেক ছোট মনে হবে যার ফলে আপনার মন খারাপ হতে থাকবে। এবং এই মন খারাপের প্রভাব পড়বে আপনার স্বাস্থ্যের উপর। সুতরাং মোটেই করবেন না তুলনা।

৪) কোনো কিছুকেই তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করবেন না তা সে যতো ছোট ব্যাপারই হোক না কেন। আপনার শারীরিক সকল ছোট্ট সমস্যাকে গুরুত্ব দিন। এতে অনেক বড় সমস্যার হাত থেকে রক্ষা পাবেন। একইভাবে মানসিক ব্যাপারগুলোতেও নজর দিন। মন অনেক প্রফুল্ল থাকবে।

৫) সব সময় নিজের প্রতি আস্থা রাখবেন, আশাহত হবেন না। একজন আশাহত মানুষ শুধুমাত্র মানসিক দিক থেকেই দুর্বল হয়ে পড়েন না তিনি শারীরিক দিক থেকেও দুর্বলতা অনুভব করা শুরু করেন। তাই মনের মধ্যে নেতিবাচক কিছুকে স্থান দেবেন না সুস্থ ও সুখী জীবন পেতে চাইলে।

৬) একটি সময়ে শুধুমাত্র একটি কাজে মনোনিবেশ করুন। একসাথে দু-তিনটি কাজ করতে গেলে মস্তিষ্কের উপর অনেক ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে যা মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা নষ্ট করে ফেলে। আবার এক সাথে দু-তিনটি কাজ করতে গেলে কাজে ভুল হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায় এবং ভুল হলে তার প্রভাবও পড়ে মনের উপর। তাই একটি সময়ে শুধুমাত্র একটি কাজে মন দিন।

Please follow and like us:
20

Comments

comments

SHARE
Previous articleলিফটের তার ছিঁড়ে গেলে করণীয় কাজ
Next articleরঙবাহারি স্বর্গের পাখি- এক অজানা পাখির গল্প
আমি শারমিন আক্তার মুক্তা। আমি বাংলাদেশে বাস করি এবং জন্ম সূত্রে বাংলাদেশি। আমি খুব সাধারন একটা মেয়ে, ন্যায়বান, বন্ধুভাবাপন্ন, স্বাধীন মতাবলম্বী। আমি জটিলতা, অসততা, মিথ্যাবাদিতা পছন্দ করিনা। আমি সব কিছুর ভাল দিকটা চিন্তা করি। আমার দুর্বলতা হল আমি অন্য মানুষকে খুব সহজেই বিশ্বাস করি। আমার শখ বই পড়া ওগান শোনা ।