দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুমতি পেল না গুগল

0
15
দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুমতি পেল না গুগল
দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুমতি পেল না গুগল
দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুমতি পেল না গুগল

দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুমতি পেল না গুগল

দেশের বাইরে সার্ভারে সরকারি ম্যাপিং ডেটা ব্যবহারের জন্য গুগলের করা আবেদন নাকচ করে দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। ১৮ নভেম্বর উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে নিরাপত্তাবিষয়ক জটিলতার উদ্ধৃতি দিয়ে মার্কিন জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানের এই আবেদন নাকচ করা হয়।

চলতি বছরের জুনে দেশটির সরকারি ম্যাপিং ডেটা দেশের বাইরে বিশ্বব্যাপী ব্যবহারের অনুমতি চেয়ে আবেদন করে মার্কিন গুগল। গুগলের আবেদনের প্রেক্ষিতে সেটি খতিয়ে দেখার সিদ্ধান্ত নেয় দেশটি। এ বছরের ২৪ অগাস্ট সিদ্ধান্ত জানানোর কথা থাকলেও পরবর্তীতে দেশটির পক্ষ থেকে জানানো হয় বিষয়টি খতিয়ে দেখতে আরও সময় প্রয়োজন। এরপর ২৩ নভেম্বর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানানোর কথা বলা হলেও কয়েকদিন আগেই সেটি প্রকাশ করা হয়েছে, জানিয়েছে রয়টার্স।

দক্ষিণ কোরিয়ায় পূর্ণাংগ গুগল ম্যাপ সেবা দিতেই দেশের বাইরে বিশ্বব্যাপী সার্ভারে সরকারি ম্যাপিং ডেটা সংরক্ষণের অনুমতি চায় প্রতিষ্ঠানটি। তবে দক্ষিণ কোরিয়ান আইন অনুযায়ী দেশের বাইরে সরকারি ম্যাপিং ডেটা ব্যবহারের অনুমতি না থাকায় এ সুবিধা দিতে পারছে না গুগল। এই ডেটার মাধ্যমে দেশটিতে হাঁটা এবং গাড়ি চালনার দিক নির্দেশনার মতো সেবা দেওয়ার কথা ছিল প্রতিষ্ঠানটির।

গুগলের অনুমতি না দেওয়ার বিষয়ে কোরিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয় ডেটা দেশের বাইরে গেলে সামরিক সুবিধাসহ অন্যান্য স্পর্শকাতর সাইট অন্যের কাছে প্রকাশ পেয়ে যাবে। এ কারণে দক্ষিণ কোরিয়াকে অনুমতি না দিতে বলা হয়।

এর আগে দেশটির ম্যাপিং ডেটার তত্ত্বাবধানে থাকা এক কর্মকর্তা জানিয়েছিলেন, গুগল যদি তার স্যাটেলাইট ইমেজিং সেবা থেকে স্পর্শকাতর ছবি সরিয়ে ফেলে তবে তারা অনুমতি পেতে পারে। কিন্তু গুগলও ওই শর্ত মেনে নেয়নি। গুগলের পক্ষ থেকে যুক্তি দেওয়া হয়– এই তথ্যগুলো স্যাটেলাইট ইমেজের মাধ্যমেই বিস্তৃতভাবে পাওয়া যায়, যেগুলো কেনা সম্ভব।

দেশটির ভূমি মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয় গুগল যদি মত বদলায় তবে এই সিদ্ধান্ত পুনরায় বিবেচনা করে দেখা যেতে পারে। সম্প্রতি দেশটিতে গুগলের বিরুদ্ধে আনা আন্টিট্রাস্ট মামলাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানের অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম বাজারের প্রতিযোগিতার জন্য ক্ষতিকর এমন অভিযোগ আনা হয়েছে বলে জানানো হয়।

Please follow and like us:
20

Comments

comments