ট্যুরিষ্ট ভিসায় ভ্রমণ করুন বিশ্বের যে কোন দেশ

0
492
ট্যুরিষ্ট ভিসায় ভ্রমণ করুন বিশ্বের যে কোন দেশ
ট্যুরিষ্ট ভিসায় ভ্রমণ করুন বিশ্বের যে কোন দেশ

ট্যুরিষ্ট ভিসায় ভ্রমণ করুন বিশ্বের যে কোন দেশ

ট্যুরিষ্ট ভিসায় ভ্রমণ করুন বিশ্বের যে কোন দেশ
ট্যুরিষ্ট ভিসায় ভ্রমণ করুন বিশ্বের যে কোন দেশ

প্রিয় probahi jibon সম্মানিত পাঠক বৃন্দ প্রথমে মহান সৃষ্টিকর্তার নাম নিয়ে শুরু করছি। সবাই আমার সালাম গ্রহণ করবেন। আশা করি আপনারা সবাই পরম করুণাময়ের অশেষ রহমতে ভালোই আছেন। বন্ধুরা আজ আমরা জানবো ইউরোপের এক দেশের ট্যুরিস্ট/ভিজিট সেঞ্জেন ভিসা পেয়ে অন্য দেশে প্রথম যাওয়া যাবে কিনা? উক্ত বিষয়টি নিয়ে অনেকেই আমাদের কাছে জানতে চেয়েছেন। আর তাই আজ আমরা উক্ত বিষয় নিয়ে কিছু জরুরী তথ্য আপনাদের মাঝে তুলে ধরার চেষ্টা করবো?

সাধারণত সেনজেনভুক্ত যে কোন একটা দেশ থেকে ভিসা নিয়ে এ অঞ্চলের সকল দেশ বিনা ভিসায় ভ্রমণ করতে পারলেও সেনজেনভুক্ত নিদিষ্ট দেশের ভিসা নিয়ে প্রথম ডেসটিনেশন হিসাবে ভিসা নেয়া দেশ পরিহার করে অন্য দেশ ভ্রমণ করলে ভিসার নিয়ম অনুযায়ী ভিসা বাতিল সহ ভ্রমণকারীকে ডিপোটেশনের স্বীকার হবার সম্ভাবনা থাকে?
অতি সম্প্রতি এক সৌদি দম্পতি সৌদি আরবের ফ্রান্স এমব্যাসি থেকে সেনজেন ভিসা নিয়ে হানিমুনের উদ্দেশ্যে প্রথম ডেসটিনেশন হিসাবে ফ্রান্সের কোন শহরকে বাদ দিয়ে সরাসরি জার্মানির ফ্রাঙ্কফুটে অবতরণ করলে জার্মান ইমিগ্রেশন পুলিশ ইস্যুকৃত সেনজেন ভিসা বাতিল সহ ফ্রাঙ্কফুট বিমান বন্দর থেকে ডিপোর্ট করে সৌদি আরবে ফেরত পাঠায়।
আরব নিউজের সূত্রে জানা যায়, এক উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সৌদি নাগরিক সেনজেন দেশ ভ্রমণের ক্ষেত্রে একই ভুল করে থাকেন। সাধারণত কোন একটা সেনজেন ভিসা দিয়ে এ অঞ্চলের সকল দেশ বিনা ভিসার ভ্রমণের সুযোগ থাকলেও ভিসা আবেদনে লেখা প্রথম ডেসটিনেশন উল্লেখ্য করতে হয় এবং সেটি মানতে বাধ্য, অন্যতায় ভিসা বাতিল সহ ডিপোটেশনের মত পরিস্থিতির স্বীকার হবার সম্ভাবনায় বেশি।

তার মানে এখানে একটি বিষয় খুব মনোযোগ দিয়ে লক্ষ্য করতে হবে যে? আপনি যদি সেঞ্জেন ভিসা পান! তাহলে সেই ভিসা দিয়ে আপনি সেঞ্জেন ভুক্ত প্রতিটি দেশেই বিনা ভিসায় ভ্রমণ করতে পারবেন কিন্তু আপনাকে প্রথম দেশ হিসেবে যেই দেশের ভিসা পেয়েছেন! সেই দেশে প্রথম যাওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ হবে।কেননা ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এর সেঞ্জেন ভিসার আইন অনুযায়ী অন্যদেশের ইম্মিগ্রেশন পুলিশ চাইলে আপনার ভিসা বাটিল এবং এয়ারপোর্ট থেকেই নিজ দেশে ফেরত পাঠিয়ে দিতে পারে, যদি আপনি যে দেশের ভিসা পেয়েছেন, সেই দেশে প্রথম না যান। তবে অনেকেই রয়েছেন যারা এক দেশের ভিসা পেয়ে অন্য দেশের প্রথম বার অবতরন করলেও পার পেয়ে গিয়েছেন, কিন্তু এর মানে এই না? যে আপনি চাইলেই আপনার মন মতো এক দেশের ভিসা পেয়ে অন্য দেশে প্রথম যেতে পারবেন। তবে হ্যাঁ একবার যেই দেশের ভিসা পেয়েছেন সেই দেশে প্রথম ডেসটিনেশন হিসেবে প্রবেশ করার পর অন্যান্য ইউরোপের সেঞ্জেনভুক্ত প্রতিটি দেশেই বিনা বাঁধায় যেতে আসতে পারবেন।

Save

Please follow and like us:
20

Comments

comments