হীরার খনি খনন করতে গিয়ে হঠাৎ মিলল অন্য কিছু

0
4
হীরার খনি খনন করতে গিয়ে হঠাৎ মিলল অন্য কিছু

হীরার খনি খনন করতে গিয়ে হঠাৎ মিলল অন্য কিছু

হীরার খনি খনন করতে গিয়ে হঠাৎ মিলল অন্য কিছু
হীরার খনি খনন করতে গিয়ে হঠাৎ মিলল অন্য কিছু

হীরার খনিতে মিলল ভয়ঙ্কর জীব! সাইবেরিয়ার একটি হীরার খনি থেকে মাটি খোঁড়ার সময় উঠে এলো এক অদ্ভুত-দর্শন প্রাণীর জীবাশ্ম। উত্তর রাশিয়ার মিরনিনস্কি জেলার উদাচনি খনিতে শ্রমিকরা অন্যান্য দিনের মতোই কাজ শুরু করেছিলেন। কিন্ত খননকার্য কিছুদূর এগোনোর পরই এক বিদঘুটে প্রাণির দেহের কাঠামো উঠে আসে বালির ভিতর থেকে।

খবর দেওয়া হয় প্রত্নতত্ত্ব বিভাগে। বিশেষজ্ঞরা সেটি দেখে বুঝতে পারেন, আবিষ্কৃত দেহাংশটি আসলে একটি জীবাশ্ম বা ফসিল। যে প্রাণীটির জীবাশ্ম পাওয়া গেছে তার আকৃতি খুব। এই শ্বদন্ত থেকে বোঝা যাচ্ছে প্রাণিটি ছিল মাংসাশী। খনি শ্রমিকরা ভেবেছিলেন এটি বোধহয় কোনো ছোটখাটো ডাইনোসরের দেহ। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রাণিটি আধুনিক উলভেরিন গোত্রের কোনো পূর্বপুরুষ।

উলভেরিন হলো ছোটখাটো ভাল্লুক জাতীয়, বড় শ্বদন্ত সম্পন্ন মাংসাশী প্রাণী। মাস্টেলিডা পরিবারভুক্ত ভোঁদড়, বেজি, কিংবা নকুলের মতই আর একটি মাংসাশী প্রাণী হলো উলভেরিন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে এই প্রাণিটি বালি চাপা পড়ে গিয়েছিল। সেই অবস্থাতেই সেটি মমিতে পরিণত হয়। যথেষ্ট ভালভাবেই মমি হয়েছিল সে, কারণ প্রাণিটির গায়ের চামড়া এবং লোম এখনও অক্ষুণ্ণ রয়েছে। এমনকী তার খুলির ভিতরে তার মস্তিস্কের কিছুটাও অবশিষ্ট রয়েছে এখনও।

কিন্তু কতদিন আগে জীবিত ছিল এই প্রাণী? সেই নিয়ে দ্বিধায় পড়েছেন বিজ্ঞানীরা। যে অঞ্চলে জীবাশ্মটি মিলেছে সেখানকার বালি মেসোজাইক যুগের, অর্থাৎ প্রায় ২৫ থেকে ২৬ কোটি বছরের পুরনো। যুগটি জীববিবর্তনের ইতিহাসে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। কারণ সে সময়েই সারা পৃথিবীতে সরীসৃপ, স্তন্যপায়ী ও ডাইনোসররা বিস্তারলাভ করে। আবার এই পর্বেরই শেষ দিকে পৃথিবী থেকে অবলুপ্ত হয়ে যায় বেশ কিছু প্রাণিও।

এই নব-আবিষ্কৃত জীবাশ্মটিও কি সেই সময়কার? জীববিজ্ঞানীরা বলছেন, আরও পরীক্ষা-নিরীক্ষার আগে সেই প্রশ্নের উত্তর দেওয়া সম্ভব নয়। তবে যদি এই প্রাণী মেসোজাইক যুগের বলেই প্রমাণিত হয়, তাহলে সেই যুগের পৃথিবী সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ সম্ভব হবে বলেই মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।

 

Please follow and like us:
20

Comments

comments

SHARE
Previous articleওজন কমিয়ে টিপস দিলেন মোটা মানুষেরা
Next articleবিশ্বের ক্ষমতাধর ১০ নারী কে জেনে নিন
আমি শারমিন আক্তার মুক্তা। আমি বাংলাদেশে বাস করি এবং জন্ম সূত্রে বাংলাদেশি। আমি খুব সাধারন একটা মেয়ে, ন্যায়বান, বন্ধুভাবাপন্ন, স্বাধীন মতাবলম্বী। আমি জটিলতা, অসততা, মিথ্যাবাদিতা পছন্দ করিনা। আমি সব কিছুর ভাল দিকটা চিন্তা করি। আমার দুর্বলতা হল আমি অন্য মানুষকে খুব সহজেই বিশ্বাস করি। আমার শখ বই পড়া ওগান শোনা ।