জেনে নিন ইন্টারভিউ এর জন্য কিছু পরামর্শ

0
29
জেনে নিন ইন্টারভিউ এর জন্য কিছু পরামর্শ
আমিই সেরা
জেনে নিন ইন্টারভিউ এর জন্য কিছু পরামর্শ
আমিই সেরা

নিজের যোগ্যতা প্রমানের অন্যতম এবং প্রথম স্থান  হচ্ছে ইন্টারভিউ । আপনি যতো স্মার্ট সুযোগ্য  আর সাহসী  হননা কেন ইন্টারভিউ ভীতি আপনার থাকবেই। ইন্টারভিউ বোর্ড একটা  যুদ্ধক্ষেত্র। ভয় পেলে চলবে না । শুধু আপনাকে  অতিরিক্ত অনিশ্চয়তা ও মানসিকচাপ  থেকে নিজেকে মুক্ত রাখতে হবে। সেজন্য ইন্টারভিউর আগে প্রথমে পরিকল্পনা করতে হবে এবং কিছু  নিয়ম-কানুনের মাধ্যমে  নিজেকে প্রস্তুত করতে হবে।

  • উপস্থিতিঃ  ইন্টারভিউর  মুল ভিত্তি হচ্ছে  আপনার উপস্থিতি । আপনাকে সব ভয় দূর করে নিজেকে এমন ভাবেই উপস্থাপন  করতে  হবে যে আপনিই সেরা। ইন্টারভিউ রুমের সদস্যদের  অনুমতি নিয়ে রুমে প্রবেশ করে স্পষ্ট ভাবে সালাম দিন যাতে সবাই  শুনতে  পায়।  এরপর  ভদ্রতার সহিত আত্মবিশ্বাস নিয়ে হ্যান্ডশেক করুন । এভাবে কোন কথা ছাড়াই নিরবতার মাধ্যমেই আপনার ইন্টারভিউর দারুন সুচনা হতে পারে।
  • মার্জিত পোশাকঃ আপনি যথেষ্ট পরিমাণ স্মার্ট  কিন্তু ইন্টারভিউর ক্ষেত্রে অবশ্যই  আপনাকে স্মার্ট এবং ভদ্রতার পরিচয় দিত  হবে। ক্যাজুয়াল পোশাক  বাদ দিয়ে  অবশ্যই মার্জিত পোশাক পড়ে  ইন্টারভিউতে উপস্থিত হতে হবে । আপনাকে কোন ভাবেই ভুলে গেলে চলবে না আপনার পোশাকের উপর অনেক কিছু নির্ভর করে ।
  • আচরন- বিধিঃ  ইন্টারভিউর সময় আপনাকে খুব  শালীনতার সহিত উত্তর দিতে হবে। খেয়াল রাখবেন  আপনার কোন অনুপযুক্ত কথা বা বিরক্তিকর চেহারা যেন প্রশ্নকর্তাদের  বিব্রত না করে। ইন্টারভিউর সময় আপনার আচরন বিধি একটা বড় ধরনের ভুমিকা পালন করে। ইন্টারভিউ রুমে  আত্মবিশ্বাস, পেশাদারিত্ব আর শিষ্টাচার  ঠিক ভাবে উপস্থাপন করতে পারলে জয় আপনার হবেই। উল্টোদিকে  আপনি যোগ্যতর হলেও আপনার উদ্ধত আচরনে আপনার সুযোগ নষ্ট  হতে পারে।
  • অভিজ্ঞতাঃ চাকরির ক্ষেত্রে অবশ্যই অভিজ্ঞ প্রার্থীর অগ্রাধিকার বেশী । প্রশ্ন কর্তা যখন আপনাকে আপনার অভিজ্ঞতার ব্যাপারে প্রশ্ন করবে  যতো দ্রুত  সম্ভব উত্তর  দিয়ে দিবেন কারন আপনি কতোটুকু অভিজ্ঞ  প্রশ্ন কর্তা  আপনার উত্তরেই তা বুজে যাবেন । তাই ইন্টারভিউতে  উপস্থিত হবার আগেই  প্রস্তুতি নিবেন যেন নিজের পুরোটা সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করতে পারেন।
  • প্রশ্ন করুনঃ প্রশ্ন কর্তা যখন  প্রশ্ন করবে আপনার কোন প্রশ্ন আছে কিনা ? তখন  চুপ না থেকে নির্ভয়ে আপনার কিছু জানার থাকলে প্রশ্ন করুন । প্রশ্ন করার মধ্যমেই আপনি বুজতে পারবেন চাকরিটা আপনার জন্য উপযুক্ত  কিনা ।
  • সিভিঃ আপনার সিভিতে দেয়া প্রতিটা তথ্যই আপনার ভালো ভাবে জানা থাকতে হবে ।  এ কথাটা অনেকের কাছেই অবান্তর বা হাসির মনে হতে পারে  । কিন্তু ইন্টারভিউতে  অনেক সময় আপনার সিভি দেখে  আপনার সম্পর্কে কিছু প্রশ্ন করতে পারে সেক্ষেত্রে আপনি যদি আমতা আমতা করেন তাহলে নিশ্চয়ই ব্যাপারটা ভালো ভাবে দেখবেনা  ইন্টারভিউ  বোর্ড।
  • আত্মসম্মান ও আত্মমর্যাদাঃ আত্মসম্মান ও আত্মমর্যাদা  জীবনের প্রতিটা ক্ষেত্রে  অতিব জরুরি । চাকরিটা আপনার খুব জরুরি হতে পারে কিন্তু ইন্টারভিউর সময়  ”দয়া  করে আমায় চাকরিটা দিন” এ ধরনের মরিয়া ভাব দেখাবেন না।  এতে আপনার আত্মসম্মান ও আত্মমর্যাদা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। ইন্টারভিউর  সময় ধীর, স্থির ও নিজের প্রতি নিজের বিশ্বাস রাখুন। আপনি জানেন চাকরিটা পাওয়ার যোগ্যতা আছে আপনার প্রস্নকর্তাকেও সেটা বুজতে দিন।
Please follow and like us:
20

Comments

comments